মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

মামলার আবেদন

 

গ্রাম আদালতের আবেদনপত্রটি সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বরাবরে দাখিল করতে হবে।

 আবেদনপত্রে কি কি তথ্য থাকতে হবে ?

         ১. আবেদনটি লিখিত ভাবে দাখিল করতে হবে।

২. যে ইউনিয়ন পরিষদের নিকট আবেদন করা হবে সে ইউনিয়ন পরিষদের নাম ও 

   ঠিকানা থাকতে হবে।

৩. আবেদনকারী এবং প্রতিবাদীর নাম, ঠিকানা ও পরিচয় থাকতে হবে।

৪. সাক্ষী থাকলে সাক্ষীর নাম, ঠিকানা ও পরিচয় থাকতে হবে।

৫. মামলা বিলম্বে দায়ের করা হলে তার কারণ উল্লেখ থাকতে হবে।

৬. আবেদনকারীর স্বাক্ষর থাকতে হবে।

৭. মামলা দায়েরের  তারিখ  থাকতে  হবে।

৮. ঘটনা,  ঘটনা  উদ্ভবের  কারণ,  ঘটনার  স্থান  ও  ইউনিয়নের  নাম,

     সময়,  তারিখ  থাকতে  হবে।

৯. নালিশ বা  দাবীর  ধরন  (প্রকৃতি)  মূল্যায়ন   থাকতে   হবে।

১০. ক্ষতির    পরিমাণ,    প্রার্থিত    প্রতিকার    থাকতে    হবে।

১১. পক্ষদ্বয়ের   সম্পর্ক    উল্লেখ    থাকতে   হবে।

     ১২. সাক্ষীদের   ভূমিকা    থাকতে   হবে।

 কী  কী    কারণে    আবেদনপত্রনাকচ  করা   যাবে?

 

১. আবেদনের ফিস  জমা না  হলে

২. এখতিয়ার  বহির্ভূত   হলে

৩. কোন   অপ্রকৃতিস্থ  ব্যক্তির    বিরুদ্ধে   আবেদন   করা   হলে।

৪. আবেদনকারী,   প্রতিবাদীর   এবং   সাক্ষীর   যে  কোন   একজনেরনাম,    ঠিকানা   ও   পরিচয়   না   থাকলে

৫.ঘটনা,    ঘটনা   উদ্ভবের   কারণ,   ঘটনার   স্থান,   সময়,   তারিখ,   ক্ষতির  পরিমাণ,   প্রার্থিত   প্রতিকার   উল্লেখ   না   থাকলে

 

৬. মামলা  বিলম্বে   দায়ের   করা   স্বত্বেও  বিলম্বের  কারণ  উল্লেখ  নাথাকলে

৭ . কোন অভিযুক্ত  ব্যক্তি   আদালত  গ্রাহ্য  বা  আমলযোগ্য  অপরাধেরজন্য পূর্বে  দোষী   সাবাস্ত   হলে

৮.  নাবালকের স্বার্থের   পরিপন্থী   হলে

৯. সংশ্লিষ্ট  বিরোধটি   নিয়ে   সালিসী   ব্যবস্থার   চুক্তি   থাকলে

১০. কোন  সরকারী   কর্মচারী   তার   কর্তব্য   পালনে   মামলায়   জড়িয়েগেলে

          ১১. কোন  আদালতে   বিচারাধীন   আছে   অথবা   পূর্বে   কোন    

                আদালতকর্তৃক  বিচার   হয়েছে   এমন   বিরোধের    আবেদন   করা   হলে।

 

গ্রামআদালত

অত্রইউনিয়নেএকটিসক্রিয়গ্রামআদালতরয়েছে।যেখানেসর্বোচ্চ৭৫০০০টাকাপর্যন্তক্ষতি পূরণেরএবংন্যায়

বিচারেরজন্যক্ষতিগ্রস্থপক্ষআদালতেমামলাদায়েরকরতেপারেন।

 গ্রাম আদালত  কী ?

গ্রাম আদালত আইন -২০০৬ অনুযায়ী গ্রামাঞ্চলের কতিপয় ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র দেওয়ানী ও ফৌজদারী বিরোধ স্থানীয় ভাবে নিষ্পত্তি করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় যে আদালত গঠিত হয় সে আদালতকে ‘গ্রাম আদালত’ বলে।

 গ্রামআদালতেরউদ্দেশ্য?

কমসময়ে, অল্পখরচে, ছোটছোটবিরোধদ্রুতস্থানীয়ভাবেনিষ্পত্তি

করাইগ্রামআদালতেরউদ্দেশ্য

 গ্রামআদালতকিভাবেগঠিতহয়?

৫(পাঁচ) জনপ্রতিনিধিনিয়েগ্রামআদালতগঠিতহয়।

ইউনিয়নপরিষদের

চেয়ারম্যান

আবেদনকারীরপক্ষের

২জনপ্রতিনিধি

(১জনইউপিমেম্বারএবং

১জনগণ্যমান্যব্যক্তি)

প্রতিবাদীপক্ষের

২জনপ্রতিনিধি

(১জনইউপিমেম্বারএবং

 ১জনগণ্যমান্যব্যক্তি)

 মামলাদায়েরেরজন্যসার্বক্ষণিকসেবাপাওয়ারজন্যযেগাযোগকরুন

  মোহাম্মদ কামরুজ্জামান গ্রামআদলতসহকারী-০১৮১৮০২৯৪৪২